Breaking News

24 বছর বয়সে পরীক্ষা দিয়েছিলেন, কিন্তু চাকরি পেলেন 55 বছর বয়সে! আসল কারণ জানলে আপনিও অবাক হবেন

আজ আপনাদের শিক্ষক জেরাল্ড জনের সংগ্রামের গল্প বলবো। তার সাথে 1989 সালে এমন ঘটনা ঘটেছিল যা খুবই বিস্ময়কর ছিল। সেই সময় জেরার্ডের বয়স ছিল 24 বছর এবং সেই সময় তিনি দেরাদুনের সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত সংখ্যালঘু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সি.এন.আই বয়েজ ইন্টার কলেজে বাণিজ্য শিক্ষকের পদ পাওয়ার জন্য পত্রিকায় একটি বিজ্ঞাপন পড়েন এবং একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জন শুধু ইন্টারভিউ থেকে পাশই করেননি, মেধা তালিকারও শীর্ষে ছিলেন।

কিন্তু তারপরেও তিনি চাকরি পাননি। চাকরি না পাওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, চাকরি পাওয়া প্রার্থীদের স্টেনোগ্রাফিতে দক্ষতা থাকতে হবে, যেখানে জন শর্ট হ্যান্ড জানতেন না। তার কারণে তিনি চাকরি পাননি। যদিও পত্রিকায় যেখানে চাকরির বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছিল সেখানে শর্ট হ্যান্ড এর উল্লেখ ছিল না।

ফারুখাবাদ এর বাসিন্দা 1990 সালে এলাহাবাদ হাইকোর্ট এ গিয়ে একটি মামলা করেছিলেন, যে বিজ্ঞাপন এ সংক্ষিপ্ত হাতের কোন উল্লেখ ছিল না কিন্তু ইন্টারভিউয়ের সময় সেটি অনিবার্য বলা হয়। তারপর 2000 সালে যখন উত্তরাখণ্ড, উত্তর প্রদেশ থেকে আলাদা হয়ে যায়, তখন মামলাটি নৈনিতালের হাইকোর্টে স্থানান্তরিত হয়।

আপনি সম্ভবত জেনে অবাক হবেন যে, জন এখন ন্যায়বিচার পেয়েছেন কিন্তু তার বয়স এখন 55 বছর। 2020 সালের ডিসেম্বরে উত্তরাখণ্ড হাইকোর্ট, জনের পক্ষে রায় দেয়। আদালত তাঁর পক্ষে রায় দিয়ে তাকে বিদ্যালয় পদায়ন এবং ক্ষতিপূরণ হিসেবে 80 লাখ টাকা দেওয়ার নির্দেশ দেন।

অতি সম্প্রতি, রিপোর্ট অনুসারে, কয়েক মাস আগে ক্ষতিপূরণের পরিমাণ এর মধ্যে 73 লক্ষ টাকা উত্তরাখণ্ড সরকার জনকে প্রদান করেছেন এবং অবশিষ্ট 7 লক্ষ টাকা উত্তরপ্রদেশ সরকার প্রদান করবে। জন এখন স্কুলের সবচেয়ে সিনিয়র শিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন, তাই তিনি শিক্ষা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষও হয়েছেন।

About Web Desk

Check Also

“পুষ্পা” ফিল্মের রক্ত চন্দন এর দাম জানেন কত? বিলুপ্ত এই চন্দন কীভাবে এল ফিল্মের সেটে? জানলে আপনিও চমকে যাবেন

সম্প্রতি রিলিজ হয়েছে আল্লু আর্জুনের ফিল্ম “পুষ্পা”। এই ফিল্ম রক্ত চন্দনের কাঠ নিয়ে তৈরি। আজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.