Breaking News

মধ্যপ্রদেশের এই পরিবারে 50 বছর পর মেয়ে হল এই দম্পতির।… সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা বার্তা….

মধ্যপ্রদেশের ভিন্ড জেলার আরেকটি পরিবার বর্তমানে শিরোনামে এসেছে। এবাড়িতে উৎসবের পরিবেশ রয়েছে যখন পরিবারে 50 বছর পর একটি মেয়ের জন্ম হয়। হ্যাঁ, এই বাড়ির কন্যাকে স্বাগত জানাতে ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে এবং অনেক আয়োজন করা হয়েছে। এই পরিবারে ছোট মেয়েটিকে স্বাগত জানাতে তার পায়ের ছাপ নেওয়া এবং তারপরে গৃহপ্রবেশ করা হয়েছিল আনন্দের সাথে। রিপোর্ট অনুযায়ী, ভিন্ড জেলার মেহেরগাঁও শহরে বসবাসকারী সুশীল শর্মার পরিবারে 1সেপ্টেম্বর একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। এর আগে তার পরিবারে 50 বছর আগে কন্যা সন্তান জন্মগ্রহণ করেছিল।

যার পরে আর কোন কন্যা সন্তান জন্ম নেয়নি এবং যার কারণে তিনি সবসময় একটি কন্যার অভাব অনুভব করতে। সুশীল ও রাগিনীর 1 সেপ্টেম্বর গোয়ালিয়রের একটি বেসরকারি হাসপাতালে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। তারপর তাদের পরিবারে সুখের পরিবেশ বিরাজ করছে। সুশীল বলেছিলেন, “মেয়ের জন্মের 50 বছর পর আমার বাবা প্রতীক শর্মা তাকে স্বাগত জানাতে বাড়ি ফুল দিয়ে সাজিয়েছেন এবং সেই সাথে যখন সে ঘরে প্রবেশ করে তিনি কন্যার ছবি তোলার জন্য একটি সংস্থার অনেক সদস্যকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন এবং প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে আয়োজন করা হয়েছিল এবং এরপরে কন্যাকে একটি দুর্দান্ত স্বাগত জানানো হয়েছিল।”

সমাজসেবা সংস্থার প্রধান তিলক সিংহ দরিয়া বলেন চম্বলের এখন পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে এবং ছেলে-মেয়ের মধ্যে পার্থক্য নেই। তিনি বলেছিলেন যে, “লোকেরা এ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত অনেকেই অনুষ্ঠানে যোগদান করেছে এবং এখনো পর্যন্ত আমাদের সংগঠনের প্রায় অনেক কন্যার বাড়িতে গৃহপ্রবেশ এর অনুষ্ঠান উদযাপন করেছে।” আপনাদের তথ্যের জন্য আমরা জানিয়ে দিই, মধ্যপ্রদেশের এই এলাকা এমন একটি এলাকা যেখানে কন্যা সন্তান জন্ম নিয়ে সবাই দুঃখ প্রকাশ করত এবং শুধু তাই নয় ছেলের আকাঙ্ক্ষায় অনেক কন্যাকে অনেক বাবা-মা জন্ম নিতে দেয়নি।

আপনাকে বলি গত কয়েক বছর পর্যন্ত এখানকার ছেলে-মেয়ে এর মধ্যে অনেক পার্থক্য ছিল এবং এখানকার মানুষেরাও মেয়ের জন্য অনেক ভুলভাল চিন্তা করে। বলা হয়ে থাকে যে,জেলার অধিকাংশ মানুষ প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যন্ত পড়াতেন কন্যাদের। এরপর হয় ঘরে বসিয়ে রাখতেন অথবা তাদের বিয়ে দিয়ে দিতেন। কিন্তু পরিবারের সাথে এই কন্যাটিকে যেভাবে স্বাগত জানানো হয়েছিল সে দিকে তাকিয়ে মনে হচ্ছে এখন মানুষের চিন্তা-ভাবনা সময় অনুযায়ী পরিবর্তিত হচ্ছে। আসুন আমরা বলি, 2011 সালের আদমশুমারি অনুসারে মোট জনসংখ্যা বিভিন্ন জেলায় হাজার জন পুরুষ এবং মাত্র 838 জন মহিলা ছিল।

About Web Desk

Check Also

দেশের জন্য শহীদ হয়েছেন ছেলে, বাবার চোখে জল নিয়ে শেষবারের মতো স্যালুট জানালেন ছেলেকে…

উত্তরাখণ্ডের বাগেশ্বরে অবস্থিত ত্রিশূল পর্বতে পর্বতারোহণ অভিযানের সময় নৌবাহিনী লেফটেন্যান্ট কমান্ডার রজনীকান্ত যাদব একটি হিমবাহের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *