Breaking News

মাত্র 15 বছর বয়সে অ্যাসিড ছুড়ে মারা হয়েছিল লক্ষ্মীকে! দেখেনিন তার আগের কিছু ছবি কতটা সুন্দরী ছিলেন তিনি।

বলা হয়ে থাকে সুন্দর মানুষদেরকেই সবাই পছন্দ করে। কিন্তু আসলে এই কথাটা কি পুরোপুরি ঠিক? আজ আমরা আপনাদের এমন এক ব্যক্তির কথা বলব যাকে অল্প বয়সে অ্যাসিড অ্যাটাক এর মুখোমুখি হতে হয়েছিল। এই অ্যাটাক তার চেহারায় পরিবর্তন আনলেও, তার দৃঢ় সংকল্প কে ভাঙতে পারেনি। তিনি ভিকটিম হয়ে ঘরের কোণে বসে থাকেনি বরং যোদ্ধা হয়ে নিজের ওপর হওয়া এই অপরাধের বিরুদ্ধে লড়েছেন।

আজ আমরা আপনাদের লক্ষ্মী আগারওয়াল এর কথা বলব। আমরা সকলেই জানি সিনেমা হল মানুষের জীবনের আয়না। সিনেমার গল্প কোনো না কোনো মানুষের জীবন থেকেই উঠে আসে। তেমনি সম্প্রতি একটি হিন্দি সিনেমা রিলিজ হয়েছিল “ছাপাক” নামে। এই সিনেমা অ্যাসিড অ্যাটাক সার্ভাইভার দের জীবন নিয়ে তৈরি হয়েছিল। এখানে লক্ষ্মী আগারওয়াল এর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন দিপিকা পাদুকন।

এই ফিল্মটি থেকে জানা যায় এক রোডসাইড রোমিও-র একতরফা ভালোবাসার জন্য লক্ষী আগারওয়াল এর পুরো জীবন নষ্ট হওয়ার মুখে ছিল। আজ আমরা আপনাদের লক্ষ্মী আগারওয়াল এর কিছু ছবি দেখাবো যা দেখে আপনারা অবাক হয়ে যাবেন। মাত্র 15 বছর বয়সী একটা মেয়ে কিভাবে কারোর হিংস্রতার শিকার হতে পারে। 1 লা জুন 1990 সালে লক্ষ্মী আগারওয়াল এর জন্ম হয়। তিনি দিল্লির বাসিন্দা। ছোট থেকেই লক্ষ্মী পড়াশোনায় ভালো ছিলেন।

পড়াশোনার পাশাপাশি মায়ের সাথে তিনি বাড়ি বাড়ি গিয়ে কাজও করতেন। জানা যায় কোন এক রোগের কারণে আগেই তার বাবা ও ভাই মারা গেছেন। লক্ষ্মী আগে যেখানে থাকতেন সেখানকার একটি লোক লক্ষ্মীকে একতরফা ভালবাসতে শুরু করেছিল। স্কুলে যাতায়াত করার সময় অনেকবার সে লক্ষীর সাথে কথা বলার চেষ্টা করে। লোকটি লক্ষ্মীর থেকে বয়সে অনেক বড় ছিল। লক্ষ্মী কখনোই সেই লোকটির প্রতি ইন্টারেস্ট ছিলেন না। তিনি বরাবরই লোকটিকে ইগনোর করতেন।

2005 সালে যখন লক্ষী বাসস্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে ছিলেন হঠাৎই সেই লোকটি এসে তার মুখে এসিড ছুড়ে মারে। 15 বছরের লক্ষী কোনদিন কল্পনাও করতে পারেননি যে তার এমন কিছু হতে পারে। সেই একটা দিন তার জীবনে ভয়ানক সময়ের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। একটু সুস্থ হওয়ার পরপর লক্ষ্মী একটি এনজিওতে কাজ করা শুরু করেন। সেই এনজিওতে কেবলমাত্র অ্যাসিড অ্যাটাক এর সারভাইভাররা কাজ করতেন এবং টাকা রোজগার করতেন।

সেখানেই তার সাথে দেখা হয় অলোকের সাথে। কাজ করতে করতে অলোক আর লক্ষ্মীর মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের সৃষ্টি হয়। এরপর তারা ধীরে ধীরে একে অপরকে পছন্দ শুরু করেন। এক সময় তারা সাত পাকে বাঁধা পড়ার সিদ্ধান্ত নেন এবং তারা বিয়ে করেন। বর্তমানে লক্ষ্মীর একটি সন্তানও আছে। তিনি তার স্বামী অলোক ও সন্তানের সাথে বেশ ভালো আছেন। তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভীষণভাবে অ্যাক্টিভ। আজ লক্ষ্মী বহু অ্যাসিড অ্যাটাক ভিকটিমের অনুপ্রেরণা।

About Web Desk

Check Also

25 বছর ধরে মানুষকে বোকা বানাচ্ছেন অক্ষয় কুমার, এবার বেরিয়ে আসলো আসল তথ্য, বিস্তারিত জেনে নিন…

বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমার চমৎকার অভিনয়ের জন্য পরিচিত। অক্ষয় প্রতিটি চরিত্রে ভালো অভিনয় করে এবং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *