Breaking News

একসময় দুবেলা খাওয়ার টাকা ছিল না, এখন কোটি কোটি টাকার মালিক গ্রেট খালি..

মানুষ নিজের পরিশ্রমের জোরেই উচ্চতার শিখরে পৌঁছাতে পারে। এমনই একজন হলেন “দ্যা গ্রেট খালি” অর্থাৎ “দালিপ সিংহ রানা”। আজ তার পরিচিতি শুধু ভারতের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই বরং সীমানা ছাড়িয়ে বিদেশেও পরিচিতি লাভ করেছেন তিনি। খালি “ডাবলু ডাবলু ই” তে পৌঁছানো প্রথম ভারতীয় পালোয়ান। তিনি 2006 থেকে 2014 পর্যন্ত “ডাব্লিউ ডাব্লিউ ই” এর সাথে যুক্ত ছিলেন। এক সময় তিনি পেট ভরে খেতে পর্যন্ত পারতেন না।

তিনি স্কুল যাওয়া পর্যন্ত ছেড়ে দেন। কারণ তার পরিবার স্কুল ফিস দিতে পারত না। কিন্তু আজ খালি নিজের পরিশ্রমের জুড়ে সফলতা অর্জন করেছেন। আজ খালির কাছে নিজের বাড়ি আছে এছাড়াও তিনি কোটি কোটি টাকার সম্পত্তির মালিক। এক রিপোর্ট থেকে জানা যায় খালির নেটওয়ার্থ 6 মিলিয়ন বা প্রায় 43.57 কোটি। “ডাব্লিউ ডাব্লিউ ই” এর সাথে কন্ট্রাক্ট এ থাকাকালীন ও বিভিন্ন ব্র্যান্ডের এনডোর্সমেন্ট এর মাধ্যমে এত টাকা রোজগার করেছেন তিনি।

এছাড়াও তিনি অম্বুজা সিমেন্ট, মৈথন স্টিলস প্রভৃতির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ছিলেন। 2014 সালে “ডাব্লিউ ডাব্লিউ ই” এর সাথে কন্ট্রাক্ট শেষ হওয়ার পর তিনি ভারতে চলে আসেন। তিনি পাঞ্জাবের জলন্ধরে একটি অ্যাকাডেমি খুলেছেন। তিনি জানান আমেরিকায় তার নিজস্ব ঘর এবং ব্যবসা আছে কিন্তু তিনি ভারতে নতুন ট্যালেন্ট খোঁজার উদ্দেশ্যে “সি ডব্লিউ ই” রেসলিং অ্যাক্যাডেমি খুলেছেন। জলন্ধর এর পর তিনি দিল্লিতেও রেসলিং অ্যাক্যাডেমি খোলেন।

কুস্তির সাথে যুক্ত থাকার পাশাপাশি তিনি একজন পুলিশ অধিকারী ছিলেন। তিনি অ্যাসিস্ট্যান্ট পুলিশ অফিসার ছিলেন। তার জন্য 14000 টাকা মাইনে ছিল। তিনি এরপর নিজের কুস্তির প্রতি বেশী মনোযোগ দিতে থাকেন। এরপর তিনি কুস্তিতে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেন। 2000 সালে ডাব্লু ডাব্লু ই স্ম্যাকডাউন এপিসোডে তিনি জিতে যান। ভারতীয় জনপ্রিয় হিন্দি রিয়েলিটি শো “বিগ বস সিজন 11” এ তিনি অংশগ্রহণ করেছিলেন।।

About Web Desk

Check Also

“পুষ্পা” ফিল্মের রক্ত চন্দন এর দাম জানেন কত? বিলুপ্ত এই চন্দন কীভাবে এল ফিল্মের সেটে? জানলে আপনিও চমকে যাবেন

সম্প্রতি রিলিজ হয়েছে আল্লু আর্জুনের ফিল্ম “পুষ্পা”। এই ফিল্ম রক্ত চন্দনের কাঠ নিয়ে তৈরি। আজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.