Breaking News

আপনিও হতে পারেন শাহরুখ খানের মেয়ে সুহানার বয়ফ্রেন্ড, শুধু মানতে হবে শাহরুখের এই শর্তগুলি।

প্রতিটি বাবা মায়ের কাছে তাদের সন্তানেরা সবথেকে অমূল্য সম্পদ হয়ে থাকে। এক মায়ের কাছে তার ছেলে যেমন রাজপুত্র হয় তেমনই এক বাবার কাছে তার মেয়ে রাজকন্যা হয়। সন্তানের চোখের জল কোনো বাবা-মা ই সহ্য করতে পারেন না। অনেক সময় তাদেরকে সকল দুঃখ কষ্ট থেকে দূরে রাখার জন্য নিজেদের যথাসাধ্য চেষ্টা করেন। এইসব করতে করতেই একদিন তারা ওভার পজেসিভ হয়ে যান। একটা সময় পর এইসব পজেসিভনেস অনেক সন্তানই মেনে নিতে পারেনা।

কেউ কেউ মুখ খোলে আবার কেউ চুপ করেই থাকে। কিন্তু বাবা মায়েদের এই চিন্তাভাবনা ঠুনকো নয়। তারা নিজেরা অনেক কষ্টের মধ্যে দিয়ে জীবনে এগিয়ে চলেছেন তাই তারা চান না এই একই কষ্ট তাদের সন্তানদেরকে ভোগ করাতে, সমস্ত দুঃখ কষ্ট থেকে সন্তানদের বাঁচাতে তারা লড়াই করে চলেন। বিশেষ করে বাবা মায়েরা মেয়েদের জন্য বেশি চিন্তা করেন। এই সমাজ কোনদিনই মেয়েদের জন্য খুব একটা সুরক্ষিত ছিল না। সময় বদলালেও চিত্রটা কিছুটা হলেও একই রয়ে গেছে।

মূলত এই কারণেই কন্যা সন্তানের বাবা মায়েরা অধিক চিন্তায় রাত পার করেন। নিজের মেয়ের সুরক্ষার কথা ভেবেই তার প্রতি মুহূর্তের খবর জানার চেষ্টা করেন তারা। এগুলো কোনটাই সন্দেহ নয় বরং মেয়ের প্রতি ভালোবাসা থেকে করেন তারা। বাবা-মা সাধারন হোক বা সেলিব্রিটি প্রত্যেকেরই নিজের সন্তানকে নিয়ে সমান চিন্তা হয়। এমনই এক বাবা হলেন আমাদের বলিউডের কিং খান অর্থাৎ শাহরুখ খান। মেয়ে সুহানা তার বাবার কাছে রাজকুমারীর থেকে কোন অংশে কম না।

সুহানার প্রতিটা আবদার পূরণ করে এসেছেন শাহরুখ খান। মেয়ের একটুও কষ্ট সহ্য করতে পারেন না বাবা শাহরুখ খান। এক ইন্টারভিউতে শাহরুখ খানের কাছে তার মেয়ের বয়ফ্রেন্ড সম্পর্কিত প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান কোন ছেলে যদি সুহানার মন ভাঙ্গে তাহলে তিনি দ্বিতীয় বার জেলে যেতে ভয় পাবেন না। তিনি তার মেয়ের জন্য সব করতে পারেন। তিনি কোনদিনই সুহানার চোখে জল আসতে দেননি সেখানে অন্য কেউ যদি তার মেয়ের চোখের জলের কারণ হয় তবে তিনি তাকে ছেড়ে দেবেন না।

তিনি সুহানার হবু বয়ফ্রেন্ড এর উদ্দেশ্যে বলেন প্রতিটা আর্গুমেন্টে তার মেয়েই ঠিক। অবশ্যই ছেলেটিকে এক্ষেত্রে হার মানতে হবে। তিনি কোনদিনই সুহানর উপর চিল্লিয়ে কথা বলেননি তিনি চান এটি সুহানার বয়ফ্রেন্ডও যেন মেন্টেন করে। তার এই ধরনের মন্তব্য থেকে বোঝাই যাচ্ছে কতটা পরিমাণ তিনি তার মেয়েকে ভালবাসেন। প্রতিটা মেয়ে তার বাবার রাজ্যের রাজকুমারী হয়ে থাকে, সুহানাও ব্যতিক্রমী নয়। তবে আরেকটি ইন্টারভিউতে তিনি জানান সুহানা যদি কাউকে পছন্দ করে তবে তিনি না করবেন না।

কিন্তু তার মন ভাঙলেও তিনি চুপ থাকবেন না। সুহানা যাকে পছন্দ করবে সে যেমনই হোক তিনি মেনে নেবেন। প্রতিটা বাবা-মায়েরই চিন্তা থাকে তার মেয়ে কোনো সম্পর্কে জড়ালে ছেলেটি তাকে কিভাবে ট্রিট করবে এবং ছেলেটি ব্যক্তিগত জীবনে কেমন হবে তা নিয়ে। এইসব কোন চিন্তাই ঠুনকো নয়। বর্তমান সময়ে এসে দেখা যায় বয়ফ্রেন্ডের থেকে মন ভাঙলেই আ’ত্ম’হ’ত্যা’র পথ বেছে নেন বহু মেয়ে।

যে সন্তানকে সমস্ত বাধা বিপত্তি থেকে আগলে এসেছেন বাবা-মা, সব সময় মাথা উঁচু করে বাঁচার শিক্ষা দিয়েছেন, নিজে না খেয়ে তাকে খাইয়েছেন সেই সন্তান যদি বাইরের কারো জন্য এত বড় সিদ্ধান্ত নেয় তবে বাবা-মায়েদের এত বছরের সব পরিশ্রম এক লহমায় মাটিতে মিশে যায়। এইসব খবর দেখে শুনেই বাবা-মায়েরা আজকাল বেশি পজেসিভ হয়ে যাচ্ছেন। সন্তানদের ক্ষেত্রে তাদের এই পজেসিভনেস যে মিথ্যে নয় তা খবরের কাগজের পাতায় চোখ রাখলেই বোঝা যায়।।

About Web Desk

Check Also

শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান এর সাথে ডেট করেছিলেন জুহি চাওলার মেয়ে, জল্পনা তুঙ্গে, অবশেষে মুখ খুললেন অভিনেত্রী…

শাহরুখ খানকে বলিউডের বাদশা বলা হয় এবং বিখ্যাত অভিনেত্রী জুহি চাওলাও একসময় দর্শকদের হৃদয়ে রাজত্ব …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *