Breaking News

প্রধানমন্ত্রী মোদী এই মহিলাকে যখন প্রশ্ন করেছিলেন আপনি দাঁতের ডাক্তারের ছেড়ে কেন আইপিএস অফিসার হলেন, তখন যা উত্তর দিয়েছিল….

আজকের আধুনিক যুগে নারীরা প্রতিটি ক্ষেত্রে পুরুষের সাথে পায়ে পা মিলিয়ে হাঁটছে। সেটা আকাশে বিমান উড়ানো হোক বা সেনাবাহিনী এবং পুলিশে ও তাদের শক্তি প্রদর্শন। এমন পরিস্থিতিতে শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যখন ভারতীয় পুলিশ সার্ভিস পরীক্ষার্থীদের সাথে আলোচনা করেন তখন তিনি মহিলা আইপিএস অফিসার দের একটি আকর্ষণীয় উত্তর পান। আসুন জেনেনি পুরো বিষয়টি কি? শনিবার অর্থাৎ 1 জুলাই সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেল ন্যাশনাল পুলিশ একাডেমির তক্ষক থেকে ভারতীয় পুলিশ সার্ভিস পরীক্ষার্থীদের জন্য একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল।

এই কর্মসূচির সময় প্রধানমন্ত্রী মোদি আইপিএস অফিসার দের আলোচনা করার সময় তাদের কাজ এবং উৎসাহের প্রশংসা করেছিলেন। এই আলোচনার সময় প্রধানমন্ত্রী মোদী পরীক্ষার্থী আইপিএস অফিসার দের ভারতের পতাকা বহনকারী হিসেবে ঘোষণা করেছেন এবং 25 বছরের জন্য দেশের উদ্দেশ্যে একটি বিশেষ মিশনে থাকার কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন। এই প্রোগ্রাম চলাকালীন প্রধানমন্ত্রী মোদি বিভিন্ন আইপিএস কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করেছিলেন যার মধ্যে লেডি অফিসার নভজোত সিমির নাম ছিল।

সিমি জানান যে তিনি ডেন্টাল পড়াশোনা শেষ করে আইপিএস এ যোগ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী মোদী যখন সিমিকে এর কারণ জিজ্ঞাসা করেন তখন তিনি বলেন যে, “পাটনায় তার ডেন্টাল প্রশিক্ষণের সময় তিনি মহিলা পুলিশ সদস্যদের সাথে দেখা ও যোগাযোগের সুযোগ পেয়েছিলেন। তারপর তিনি সিভিল সার্ভিসে যোগ দিতে উৎসাহিত হয়। এরপর সার্ভিসের জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেন এবং তিনি আইপিএস পদে নির্বাচিত হন। প্রধানমন্ত্রী মোদী সিমিকে জিজ্ঞাসা করলেন যে, আপনি মানুষের দাঁতের ব্যাথা দূর করার দায়িত্ব নিয়েছিলেন তো এমন অবস্থায় দেশের শত্রুদের দাঁত ভাঙার দায়িত্ব নিলেন কেন?”

প্রধানমন্ত্রী মোদির প্রশ্নের একটি আকর্ষণীয় উত্তর দিয়ে তিনি বলেন যে তার চোখ সবসময় ছিল সিভিল সার্ভিস এর দিকে এমন পরিস্থিতিতে অনেকজনের আইপিএস অফিসার হয়ে ডাক্তারসহ একজনের দায়িত্ব পালন করে মানুষের দুঃখ কষ্ট দূর করতে পারে। বর্তমানে সিমি বিহার ক্যাডারের দায়িত্ব নিয়েছেন যেখানে তিনি মূলত পাঞ্জাবের বাসিন্দা। সিমির কোথায় দাঁতের ব্যথা এবং সমাজের শত্রুরা একই প্রকৃতির। তাই তিনি মানুষের দাঁতের ব্যথার সাথে সাথে সমাজের ব্যথা কেও নির্মূল করার পথে নেমেছেন। সিমি এর মত মহিলা অফিসার দের দেখে দেশের মেয়েদের সিভিল সার্ভিসে যোগ দেওয়ার উৎসাহ বাড়বে এই আশা করা যায়।।

About Web Desk

Check Also

দেশের জন্য শহীদ হয়েছেন ছেলে, বাবার চোখে জল নিয়ে শেষবারের মতো স্যালুট জানালেন ছেলেকে…

উত্তরাখণ্ডের বাগেশ্বরে অবস্থিত ত্রিশূল পর্বতে পর্বতারোহণ অভিযানের সময় নৌবাহিনী লেফটেন্যান্ট কমান্ডার রজনীকান্ত যাদব একটি হিমবাহের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *