Breaking News

পড়াশোনাতে মন লাগত না, 34 বার অসফল হয়েও আজ ইনি আয়কর বিভাগের অফিসার! জেনে নিন বিস্তারিত..

সফলতা পাওয়ার আগে অনেকের জীবনেই প্রথমে অসফলতা আসে। অসফলতা কে জয় করে নিয়ে সামনের দিকে তো অনেকেই এগিয়ে যেতে চায় কিন্তু এই অসফলতা যদি বারবার আসতে থাকে সে ক্ষেত্রে বেশিরভাগ জনই হার মেনে নেয়, ছেড়ে দেয় চেষ্টা করা। অপরদিকে এমন কয়েকজনকেও পাওয়া যাবে যারা বারবার অসফল হওয়ার পরেও নিজের লক্ষ্যে পৌঁছানোর আশায় চেষ্টা করতে পিছপা হন না।

আজ আমরা এমনই একজনের কথা আপনাদের বলব যিনি 34 বার অসফল হয়েও শেষে সফলতা পেয়েছেন। আয়কর নিরীক্ষক সন্দীপ বুডানিয়ার জন্ম 18 ই অক্টোবর 1992 সালে পাঠানকোটে হয়। তিনি তার পড়াশুনা পাঠানকোট এরই এক স্কুল থেকে শুরু করেন। তিনি জানান তার বাবার বদলির চাকরি হওয়ায় বহুবার তাকে স্কুল বদলাতে হয়েছে। একাদশ শ্রেণীতে পড়াকালীন তিনি রাজস্থানে চলে যান এবং সেখানেই তার বাকি পড়াশোনা করেন।

2009 সালে সন্দীপরের বাবার রিটায়ারমেন্ট হয়ে যায়। তার দাদা বর্তমানে জয়পুরে বিজনেস করেন। বাবাকে ছোট থেকেই আর্মির পোশাকে দেখে এবং তার রোমাঞ্চকর জীবনের কথা শুনে তার মনে খুব ছোট থেকেই আর্মি অফিসার হওয়ার ইচ্ছে দানা বেঁধেছিল এবং দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা হওয়ার পর থেকেই তিনি ডিফেন্সে জয়েন হওয়ার পরীক্ষা দিতে থাকেন। 19 বার তিনি পরীক্ষায় বসেন এবং প্রত্যেকবারই অসফল হন।

এক্ষেত্রে বহু মানুষই হাল ছেড়ে দিয়ে, পরিশ্রম আর করতে চায় না। কিন্তু সন্দীপ ডিফেন্সে জয়েন হওয়ার বয়স পার করে যাওয়ার পর অন্যান্য সার্ভিসের জন্য পরীক্ষা দিতে থাকেন। 2013 থেকে 2016 পর্যন্ত তিনি এস আইসিপিও, ssc.cgl, এলআইসি এএও, ক্লার্ক, আয়কর বিভাগের নিরীক্ষক প্রভৃতি পরীক্ষা দিতে থাকেন। কিন্তু প্রতিটি পরীক্ষাতেই তিনি অসফল হতে থাকেন। যখনই কেউ তার কাছে পরীক্ষার ফল জিজ্ঞাসা করত প্রতিবার অসফল জানাতে জানাতে তিনি হাঁপিয়ে উঠছিলেন।

এরপর 2017 সালের রবির কিরণ তার জীবনে নতুন আশার আলো নিয়ে আসে। 2017 সালের আয়কর বিভাগের নিরীক্ষকের পরীক্ষার রেজাল্ট যখন বেরোয় তিনি জানতে পারেন তিনি এই পদের জন্য নিযুক্ত হয়েছেন। সন্দীপ জানান তিনি মানসিকভাবে যথেষ্ট স্বাবলম্বী হলেও বারবার অসফলতা তাকে নিরাশ করছিল। এই সময় তার পাশে তার গার্লফ্রেন্ড সব সময় ছিনল এবং তাকে শক্তি যুগিয়েছেন সামনে এগিয়ে যাওয়ার। এরপর 2018 সালে তিনি আয়কর বিভাগের নিরীক্ষক পদে যুক্ত হন। তিনি জানান অসফলতা যতবারই আসুক না কেন ভয় পেয়ে হার না-মেনে চেষ্টা করে যেতে হবে।।

About Web Desk

Check Also

দিব্যা ভারতীর জীবনে ছিল অনেক গোপন কাহিনী, জেনেনিন কি হয়েছিল 5 এপ্রিল 1993 এর রাতে

অভিনেত্রী দিব্যা ভারতীর নাম শুনলেই এক মিষ্টি মুখের মেয়ের কথা মনে পড়ে। খুব অল্প বয়সেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *