Breaking News

মা সিরিয়াল খ্যাত ঝিলিকের ঘুম আসতে এখন আর মা কে লাগে না পেয়ে গেছে প্রেমিক।

“তোমায় ছাড়া ঘুম আসেনা মা” গানটা মনে পড়ে? একটা সময় ছিল যখন সন্ধ্যে হতেই বাঙালির ঘর থেকে এই গান ভেসে আসত। এই গানটি ছিল তৎকালীন সময়ের জনপ্রিয় ধারাবাহিক “মা” এর থিম সঙ্গ। এই ধারাবাহিকটি ছিল ছোট্ট একটি মেয়ে ঝিলিক কে কেন্দ্র করে। ঝিলিককে তার মা মেলায় হারিয়ে ফেলে। তারপর থেকেই তার মাকে খুঁজে পাওয়ার যে চেষ্টা আর সেই চেষ্টার পথে যে সমস্ত সমস্যা দেখা দেয় সেই নিয়েই ছিল সিরিয়ালটির গল্প।

সিরিয়ালটির কোকড়ানো চুলের ঝিলিককে প্রত্যেকেই নিজের ঘরের মেয়েই করে নিয়েছিলেন। তার কষ্টে যেন সবারই চোখে জল, সবাই যেন অনুভব করতে পারত তার কষ্ট। তাহলেই ভাবুন ঠিক কতটা মন প্রাণ দিয়ে ক্যারেক্টার টিকে ঝিলিক অনুভব করেছিল যে কারণে তার অভিনয়ের কষ্ট-যন্ত্রণা ফুটে উঠেছিল বাস্তব হয়ে। অবশ্য অনেকেই এখন বলেন যে তাদের ছোটবেলার সন্ধ্যে গুলো ঝিলিক এর জন্যই নাকি নষ্ট হয়ে গেছে।

তাই বলে ভাববেন না যে প্রত্যেকে রাগে বলে, সবাই মূলত মজার ছলেই বলে থাকেন। আসলে ওই সময় গুলোতে মা কাকিমারা নিজেদের সংসারের সব কাজ শেষ করে আর সন্তানদের থেকে টিভির রিমোট নিয়ে বসে পড়তেন সেই সময় টিভির সামনে, ঝিলিকের “মা” সিরিয়াল দেখতে। সেই ছোট্ট ঝিলিক আজ বড় হয়েছে। অবশ্য তার আসল নাম ঝিলিক নয় তিথি বসু।

কিন্তু অনেকেই তার এই নামটি জানেনা, বলা ভালো তিথি তুলনায় ঝিলিক নামটিই বেশি জনপ্রিয়। তিথি জানান এখনো তার কোনো পুরোনো ফ্যান দেখলে তাকে ঝিলিক বলেই ডেকে থাকেন। ঝিলিকের একটি ইউটিউব চ্যানেলও আছে, যেখান থেকে জানা যায় ছোট্ট ঝিলিক অর্থাৎ বড় তিথি বসু শুধুমাত্র একজন অভিনেত্রীই নয় তিনি খাদ্যরসিকও। অবশ্য সে কথা আপনারা তার চেহারা দেখে বুঝতে পারবেন না।

তাহলেই ভাবুন ঠিক কতটা মেইনটেইন করে তিথি নিজেকে। তিথি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভীষণ অ্যাক্টিভ। অভিনয়ের পাশাপাশি, মডেলিং তার অন্যতম প্রিয়। মাঝেমাঝেই বিভিন্ন হট এবং বোল্ড ফটোশুটের ছবি তিনি তার অনুগামীদের সাথে ভাগ করে নেন। বর্তমানে তিথি তার মনের মানুষের সাথে একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেন। ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে তিনি তার মনের মানুষের বাহুবন্ধনে রয়েছেন। মনের মানুষটির জন্মদিন উপলক্ষে তিনি ছবিটি পোস্ট করেছেন।

সেই ছবির ক্যাপশন থেকে বোঝা যায় তাদের ভালোবাসা ঠিক কতটা গাঢ়। আপনারা কি জানেন তিথি বসুর মনের মানুষটি কে? তিনি হলেন দেবায়ুধ পাল, একজন ক্রিকেটার। যার স্বপ্ন নীল জার্সি গায়ে ভারতের হয়ে ক্রিকেট খেলার। দেবায়ুধের এই স্বপ্ন তিথিরও স্বপ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভালোবাসার মানুষকে নিয়ে এই পোস্ট ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গেছে। অনেকে তাদের শুভকামনাও জানিয়েছেন। আবার পাশাপাশি কিছু নেতিবাচক কমেন্টও তার কমেন্টস বক্সে দেখা গেছে। এই প্রসঙ্গে আপনাদের মূল্যবান মতামত আমাদের জানান।।

About Web Desk

Check Also

বিস্ময়কর ঘটনা: ৪ হাত-পা ওয়ালা শিশু জন্ম নিতেই গ্রামে ঘটে গেলো এই ঘটনা!

প্রকৃতির এক অনন্য রূপ দেখা গেলো সোমবার বিহারের কাটিহার সদর হাসপাতালে। যেখানে চার হাত-পা বিশিষ্ট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.