Breaking News

বিদ্যুৎ বিল বেশি আসছে! আজই ব্যবহার করুন এই টিপস গুলি।

বর্তমান লকডাউনের পরিবেশে মানুষের পেট ভরার মতো টাকা নেই তার ওপর যদি বেশি মাত্রায় ইলেকট্রিক বিল আসে তাহলে তা গোদের ওপর বিষফোঁড়া সমান। কিন্তু তাও মানুষকে তো ইলেকট্রিক বিল দিতেই হবে। যখনই আমরা ইলেকট্রিক বিল হাতে পাই আমরা শুধু একটাই প্রার্থনা করি আগের বারের থেকে যেন ইলেকট্রিক বিল কম আসে।

কিন্তু সেই প্রার্থনা হয়তো আমাদের মঞ্জুর হয় না। আগের বারের তুলনায় কম আসার বদলে বেশি আসে হয়তো কখনো সখনো একই আসে। বিল যাই আসুক না কেন তা নিয়ে আমরা কিছু বলতে পারি না কারণ তার সরকার নির্ধারিত। কিন্তু আপনারা কি জানেন ছোটখাটো ভুলের জন্য আমাদের ইলেকট্রিক বিল বেশি আসে।

আজ আমরা আপনাদের এমন কিছু তথ্য দেব যার ভিত্তিতে আপনারা চাইলেই আপনাদের ইলেকট্রিক বিল কমাতে পারেন। বর্তমানে অনেকের বাড়িতেই রিমোটের দ্বারা বিভিন্ন অ্যাপ্লায়েন্সেস অন অফ করা যায়। আপনারাও কি তাদের মধ্যেই একজন? তাহলে আমাদের প্রথম টিপস আপনাদের খুব কাজে লাগতে চলেছে। অনেক সময় হয়তো আপনারা রিমোট দিয়ে পাখা বা এসি বন্ধ করে দেন।

আপনারা ভাবেন যে আপনাদের এই অ্যাপ্লায়েন্সেস গুলো বন্ধ হয়ে গেছে। কিন্তু আসলে তা হয় না। এই অ্যাপ্লায়েন্সেস গুলো বন্ধ হওয়ার বদলে স্ট্যান্ডবাই মোডে চলে যায়। স্ট্যান্ডবাই মোডে থাকাকালীন অ্যাপ্লায়েন্সেস গুলো 5 পার্সেন্ট পাওয়ার কনজিউম করে। তাই আপনারা রিমোটের বদলে সুইচ বোর্ড থেকে অ্যাপ্লায়েন্সেস গুলো বন্ধ করে দিন।

আচ্ছা আপনি কি বাড়ির জন্য নতুন কোন অ্যাপ্লায়েন্সেস কেনার কথা ভাবছেন? যদি ভেবে থাকেন তাহলে আমাদের দ্বিতীয় টিপস আপনার জন্য খুব কাজের। এবার থেকে যখনই নতুন কোন ইলেকট্রিক প্রোডাক্ট কিনবেন অবশ্যই তা ফাইভ স্টার রেটিংস এর কিনবেন। ফাইভ স্টার রেটিং এর প্রোডাক্ট গুলি দামি হলেও অন্যান্য কম স্টার রেটিং এর প্রোডাক্ট এর তুলনায় বেশি বিদ্যুৎ সাশ্রয় করে।

তাই এবার থেকে যখন ফ্রিজ এসি পাখা এসব কিনতে যাবেন রং আর ফিচারস এর সাথে সাথে রেটিং টাও দেখে নেবেন। পুরনো ফিলামেন্ট যুক্ত বাল্ব এর তুলনায় এলইডি বাল্ব অনেক বেশি বিদ্যুৎ সাশ্রয় করে। এখন অনেক বাড়িতেই এলইডি বাল্ব বা এলইডি টিউব লাইটের ব্যবহার শুরু হয়েছে। এখনো পুরনো ফিলামেন্ট যুক্ত বাল্ব ব্যবহার করছেন তারা যত দ্রুত সম্ভব এলইডি বাল্ব কিনুনএতে আপনাদের বিদ্যুৎ বিল তুলনামূলক অনেকটাই কম আসবে।

অনেকেই ঘরের দরজা-জানালা আটকিয়ে লাইটের আলোয় কাজ করে। এই অভ্যাসটা বদলিয়ে ঘরের দরজা জানলা খুলে কাজ করুন তা আপনার শারীরিক দিক থেকেও অনেক সাহায্য করবে, এছাড়াও আপনার বিদ্যুৎ বিল কম আসবে। আর চেষ্টা করবেন ডেটের আগে লাইট বিল জমা করার। ভারতে সাধারনত ডেটের আগে লাইট বিল জমা করলে 2 থেকে 4 শতাংশ ছাড় পাওয়া যায়।

বর্তমান সময়ে অনলাইনে আমরা আমাদের অনেক বিল পেমেন্ট করে থাকি। এই অনলাইনের ব্যবহার আমরা আমাদের ইলেকট্রিক বিল জমাও করতে পারি এতে দুটি সুবিধা আমরা পেয়ে যাব। এক আমাদের লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে বিল দিতে হবে না আর দুই অনেক সময় গুগল পে, পেটিএম, ফোনপে প্রভৃতি অ্যাপে অফার চলার কারণে দুই থেকে চার পার্সেন্ট ছাড় পাওয়া যায় ইলেকট্রিক বিলে।

আবার কখনো এর থেকে বেশি ও ছাড় পাওয়া যায়। কিন্তু যদি কখনো কোনো অফার নাও থাকে তাও অল্পস্বল্প ছাড় অনলাইন পেমেন্ট এর মাধ্যমে আমরা পেতে পারি। ফ্রিজ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সব সময় চেষ্টা করবেন যেন ফ্রিজ আপনাদের বাড়ীর সব থেকে ঠান্ডা জায়গায় থাকে। আর ফ্রিজ এর পিছনের পাইপগুলো দেখবেন তাতে যেন নোংরা না জমে।

ফ্রিজ খোলার আগে ভেবে নেবেন আপনাকে ঠিক কি কি জিনিস ভেতরে রাখতে হবে বা বাইরে বের করতে হবে আর সবথেকে কম সময়ের জন্যই ফ্রিজ খুলে রাখার চেষ্টা করুন। এসি চালালে অবশ্যই তা 24 থেকে 25 ডিগ্রি বা তার বেশি রাখার চেষ্টা করুন। কারণ আপনি 18 ডিগ্রিতে রাখলে যে পরিমাণ বিদ্যুৎ বিল আসবে 24 থেকে 25 ডিগ্রি তে রাখলে তার থেকে অনেক কম আসবে। আজ থেকেই আমাদের দেওয়ার টিপস গুলি ব্যবহার করুন আর আমাদের জানান আপনাদের ইলেকট্রিক বিল কমলো কিনা।।

About Web Desk

Check Also

টানা এক বছর আপনার বাড়িঘর মশামুক্ত রাখতে খরচ করুন মাত্র ৫ টাকা, এটি দারুণ কার্যকরী টিপস জেনে নিন!

অনেক সময়ই বাড়িতে মশার উপদ্রব বেড়ে যায়। বিশেষ করে বর্ষার সময় জমা জলে মশা বেশি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *