Breaking News

স্বামী ছেড়ে মামী করল ভাগ্নে কে বিয়ে! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল ভিডিও।

জীবনে অনেকেরই প্রেম আসে। মানুষ সেই ভালোবাসার মানুষকে কাছে রাখার জন্য নিজের সাধ্যের বাইরে গিয়েও চেষ্টা করে থাকে। যখন মানুষ সত্যিই কাউকে ভালোবাসে ঠিক ভুল এর বিচার করে না। ভালোবাসার অনেক গল্পই হয়তো শুনেছেন। কিন্তু আজ আমরা আপনাদের এমন এক সত্য ঘটনা বলব যা হিন্দি সিনেমাকে হার মানায়।

এই ঘটনাটি বিহারের জমুই জেলার। আসলে এক মহিলা তাঁর ননদের ছেলে অর্থাৎ ভাগ্নের প্রেমে পড়ে যায়। মামী ভাগ্নের প্রেম এত গভীর ছিল যে তাঁরা বিয়ে করে নেয়। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাঁরা এই খবর তাঁদের পরিবারকে জানায়। তাঁদের ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে যে ভাগ্নে চন্দন কুমার তার মামীকে সিঁদুর পড়াচ্ছে।

চন্দন কুমার আর তার মামীর গত কয়েক বছর ধরেই প্রেমের সম্পর্ক চলছে। পাওয়া খবর অনুযায়ী চন্দন কুমার মুম্বাই তে অটো চালায়। তার মামাও সেখানে থাকে। এই সময়েই তাঁদের সম্পর্ক শুরু হয়ে যায়। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে মামী ভাগ্নের পা ছুঁয়ে প্রণাম করে স্ত্রী ধর্মের পালন করেন।

লকডাউনের কারণে তাঁরা মুম্বাই থেকে নিজের বাড়ি বিহারে চলে আসেন। বিহারে ফিরে আসার কিছুদিন পর চন্দনের মামা তাকে আর তার মামীকে লক্ষীসরায়ের মননপুরে নিজের বাড়িতে এক সাথে দেখে ফেলে। এরপর থেকেই শুরু হয় ঝামেলা। তাঁদের আলাদা করার পুরো চেষ্টা চলতে থাকে। কিন্তু তাঁরা একে অপরকে না ছাড়ার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিলেন।

তাই তাঁরা ঠিক করেন তাঁরা পালিয়ে যাবেন। সেই অনুযায়ী তাঁরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গিয়ে এক মন্দিরে বিয়ে করে নেন। তাঁদের বিয়ের সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পাশাপাশি মানুষ তাঁদের কটাক্ষ করতেও ছাড়ছে না। কিন্তু তাঁদের এতে কোনো মাথা ব্যথা নেই। তাঁরা একে অপরের সাথে থাকতে চেয়েছে আর তাতে তার সমর্থ হয়েছে। আপনাদের কী মনে হয়? এই ঘটনার প্রেক্ষিতে আপনাদের মূল্যবান মতামত আমাদের জানান।।

About Web Desk

Check Also

বিস্ময়কর ঘটনা: ৪ হাত-পা ওয়ালা শিশু জন্ম নিতেই গ্রামে ঘটে গেলো এই ঘটনা!

প্রকৃতির এক অনন্য রূপ দেখা গেলো সোমবার বিহারের কাটিহার সদর হাসপাতালে। যেখানে চার হাত-পা বিশিষ্ট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.