Breaking News

সুন্দর মিষ্টি আদর মাখা গলায় ছেলে কেশব কে গান শোনালেন মধুবনি, ভাইরাল ভিডিও

যাঁরা বাংলা ধারাবাহিকের ভক্ত তাঁরা এক বাক্যে ওম-তোড়া কে চিনে যাবেন। কি তাইতো? মনে পড়ল এক মিষ্টি টিনেজ প্রেমের গল্প “ভালোবাসা ডট কম” -এর কথা। হ্যাঁ সেই “ভালোবাসা ডট কম” খ্যাত জুটি ওম-তোড়া কে নিয়েই কথা হবে আপনাদের সাথে। সময়টা ২০১০ সাল। টিভির পর্দায় শুরু প্রথম টিন-এজ প্রেম কাহিনি।

ছোটো থেকে বড় সবারই মনে জায়গা করে নেয় ধারাবাহিকটি। টানা চার বছর বেশ ভালো মানের টিআরপি নিয়েই চলে “ভালোবাসা ডট কম”। অনেক সময় সিরিয়াল -এর প্রধান চরিত্রেরা দর্শকদের মনে এতটাই জায়গা করে নেয় যে শুধুমাত্র পর্দায় নয় বাস্তব জীবনেও তাঁদের একসাথেই দেখতে চান দর্শকেরা।

অবশ্য একসাথে কাজ করতে করতে অনেকেই প্রেমে পড়ে যান। ওম-তোড়াও একে অপরকে ভালোবেসে ফেলে। এই ভালোবাসার জোরেই তাঁরা ২০১৬ নাগাদ অগ্নিকে সাক্ষী রেখে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের চার বছর পর তাঁদের কোল আলো করে আসে তাঁদের পুত্র সন্তান কেশব। শ্রীকৃষ্ণের ভক্ত হওয়ায় তাঁর নামেই নাম রাখা হয়।

সন্তান ও মায়ের সুস্থতার কথা ওম অর্থাৎ রাজা শেয়ার করেন তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায় একাউন্টে। এখন এই একরত্তি কেশব কে নিয়েই দিন কাটছে তোড়া অর্থাৎ মধুবনীর। সেই সব মুহুর্ত অনুগামীদের সাথে শেয়ারও করছেন রাজা-মধুবনী। তবে অনুগামীরা এখনও কেশবের মুখ দেখতে পায়নি। কোনো এক বিশেষ দিনে হয়তো এই সেলেব দম্পতি তাঁদের সন্তানের মুখ অনুগামীদের দেখাবেন।

মধুবনী এক ভিডিও তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন যেখানে দেখা যাচ্ছে ছোট্ট কেশব মায়ের কোলে শুয়ে গান শুনছে। মধুবনী জানান তাঁর গলায় গান শুনতে কেশবের বেশ ভালোই লাগে। অবশ্য ভিডিওটি দেখলে আপনারাও বুঝতে পারবেন যে কেশবের কতটা ভালো লাগে মায়ের গান শুনতে। সেই ভিডিওটি দেখে না থাকলে দেখে নিতে পারেন আপনারা।।

About Web Desk

Check Also

বিস্ময়কর ঘটনা: ৪ হাত-পা ওয়ালা শিশু জন্ম নিতেই গ্রামে ঘটে গেলো এই ঘটনা!

প্রকৃতির এক অনন্য রূপ দেখা গেলো সোমবার বিহারের কাটিহার সদর হাসপাতালে। যেখানে চার হাত-পা বিশিষ্ট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.