Breaking News

“শখের দাম লাখ নয় কোটি” পাঞ্জাবের এক ব্যবসায়ী 6 টি হেলিকপ্টার কিনেছেন, দেখতে ভিড়ের ঢল নেমেছে

সম্প্রতি পাঞ্জাবের একটি আকর্ষণীয় ঘটনা সামনে এসেছে। আসলে পাঞ্জাবের এক ব্যক্তি যিনি স্ক্র্যাপের দোকান চালান, তিনে ছয়টি জাঙ্ক হেলিকপ্টার কিনেছেন ভারতীয় বিমানবাহিনীর। ভাবুন লোকেরা যখন কেবল জেসিবি এবং ক্রেন দেখতে জড়ো হয় তখন হেলিকপ্টারটি কত লোককে আকর্ষণ করবে।

এই পুরনো জাঙ্ক হেলিকপ্টারগুলো দেখতে লোকেরা জড়ো হয়েছে এবং লোকেরা সেই হেলিকপ্টার এর সাথে প্রচুর সেলফি তুলছে। পাঞ্জাবের বাসিন্দা মিতুরাম আরোরার ছেলে ডিম্পল অরোরা এই হেলিকপ্টার কিনেছেন। এগুলি হল বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টার উত্তর প্রদেশ সাহারানপুর জেলার সর্সাওয়া বিমানবন্দর স্টেশন থেকে সংগ্রহ করা হয়েছিল।

আসুন আমরা আপনাকে বলি যে তিনি অনলাইনের বিভিন্ন মাধ্যমে এই হেলিকপ্টারগুলো কিনেছেন এবং যার জন্য তিনি দরপত্রটি পূরণ করেছিলেন এবং তারপরে 2 লক্ষ টাকা দেওয়ার পরে তিনি এই হেলিকপ্টার গুলি নিজের নামে করেছিলেন। এই হেলিকপ্টার গুলির প্রত্যেকটির ওজন 10 টন।

ডিম্পল এর বাবা মিতু রাম তার দোকানে সূচ থেকে শুরু করে জাহাজ পর্যন্ত সবকিছু রাখেন। কেবল ছটি হেলিকপ্টার কেনার পরে তিনটি হেলিকপ্টার বিক্রি হয়েছিল। যার একটি মুম্বাইয়ের একজন নিয়েছেন এবং অন্যটি লুধিয়ার একজন কিনেছেন। বাকি তিনটি হেলিকপ্টার তিনি সোমবার সন্ধ্যায় নিজের দোকানে নিয়ে আসেন।

সেখানে হেলিকপ্টার গুলি নিয়ে আসার সাথে সাথে এটি দেখার জন্য প্রচুর লোক আগ্রহী হয়ে ভিড় করে ছিল। এই লোক গুলির মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যারা হেলিকপ্টার মাটিতে দাঁড়াতে প্রথমবারের মতন দেখেছে। তাই লোকেরা হেলিকপ্টার এর সাথে তাদের সেলফি তুলতে শুরু করে।

ডিম্পল তার কাজ সম্পর্কে বলেছেন যে জাঙ্ক বিক্রির এই কাজটি বাবা 1988 সালে শুরু করেছিলেন এবং পরে ধীরে ধীরে তাদের কাজ বাড়তে থাকে। এখন তোদের জাঙ্কের এই কাজটি এত বেশি বিস্তৃত হয়েছে যে তার 6 একর জমির প্রয়োজন হয় সেগুলি রাখতে।

শুধু পাঞ্জাব নয় দেশ-বিদেশের অনেক জায়গা থেকেও তারা জাঙ্ক কিনে থাকে। তিনমাস আগে একদিন ডিম্পল যখন যান কিছু অনলাইনে অনুসন্ধান করছিলেন তখন তিনি এই জাঙ্ক হেলিকপ্টারগুলো বেরিয়ে এসেছিলেন। তারপরে সে এই বিমান বাহিনীতে অনুষ্ঠিত হওয়া জাঙ্ক হেলিকপ্টারটি নেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিতে থাকেন।

কিন্তু লকডাউন এর কারণে তাদের আনতে দেরি হয়েছিল। সোমবার সন্ধ্যায় এই তিনটি হেলিকপ্টার ট্রলিতে চাপিয়ে তারা তাদের বাড়িতে নিয়ে আসেন। হেলিকপ্টার গুলি আনার জন্য 75 হাজার টাকা ভাড়া দিতে হয়েছিল। এই হেলিকপ্টারগুলো দেখতে প্রচুর লোক আসতে শুরু করে।

বর্তমানে হেলিকপ্টারগুলো সেখানকার লোকেদের জন্য বিনোদনের মাধ্যম হয়ে উঠেছে এবং পুরো শহরটি একটি পর্যটন স্পট এ পরিনত হয়েছে। প্রতি সকালে এবং সন্ধ্যায় লোকেরা তাদের দেখতে আসছেন শিশু এবং পরিবারসহ লোকেরা হেলিকপ্টার দেখার জন্য এত ভিড় করছে যে পুলিশ কেও আসতে হচ্ছে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য।।

About Web Desk

Check Also

সৌন্দর্যের দিক থেকে দীপিকা পাডুকোনকে হার মানাবে রণবীর সিং এর বোন।

বিখ্যাত অভিনেতা রণবীর সিং তার ভিন্ন স্টাইল এবং উজ্জ্বল অভিনয়ের জন্য পরিচিত এবং তিনি প্রায়ই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *