Breaking News

চাণক্য নীতি অনুযায়ী এই ধরনের মানুষের থেকে দূরে থাকবেন, এরা কালসর্পের সমান।

আচার্য চানক্য যিনি এককালের শ্রেষ্ঠ পন্ডিত ছিলেন। তিনি তার চাণক্য নীতি গ্রন্থে যা বলে গেছিলেন তা সকলের পক্ষে অত্যন্ত উপকারী বলে প্রমাণিত হয়। শতাব্দী আগে আচার্য চাণক্য এমন অনেক কিছুই বলেছিলেন যা আজও মানুষের জন্য খুব কার্যকর। চানক্য জীবনের প্রতিটি পরিস্থিতি, সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ইত্যাদি কে ঘনিষ্ঠভাবে অধ্যয়ন করেছেন।

আচার্য চানক্য ছিলেন চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের সাধারণ সম্পাদক। আজও তিনি ভারতের ইতিহাসে একটি বিশিষ্ট স্থান অর্জন করে আছেন। আজকের বিশ্ব অনুসারে চাণক্য নীতি রচিত ধারণাগুলি যথেষ্ট নির্ভুল প্রমাণিত। তিনি অনেক কিছুই বলেছেন এবং একইভাবে তিনি বলেছেন যে কোন ধরনের ব্যক্তি একটি কালো এবং বিষাক্ত সাপের চেয়ে বেশি ক্ষতিকারক এবং বিপদজনক।

চাণক্য নীতি তে চাণক্য এমন লোকদের থেকে দূরে থাকতে বলেছেন। যাতে সামনের ব্যক্তির কোনো ক্ষতি না হয়। আচার্য চানক্য জীবনের অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে তার কিছু চিন্তা-ভাবনা ও নীতি লেখেন চাণক্য নীতিতে। চাণক্য নীতি সারা বিশ্বে আলোচিত। চাণক্য যিনি তাঁর বুদ্ধিমত্তার ভিত্তিতে একটি সাধারন শিশুকে সম্রাটের পদে উন্নীত করেছিলেন।

তিনি বলেছেন একটি কালো মানুষ একটি কাল সাপের চেয়েও খারাপ। এর অর্থ যে ব্যক্তির মনের ময়লা অর্থাৎ হিংসা থাকে সেই ব্যক্তি কালো এবং বিষাক্ত সাপের সমান। এখানে তিনি কালো বলতে গায়ের বর্ণ কে নয় মনের হিংসাকে বুঝিয়েছেন। আচার্য চানক্য তার নীতিমালাতে এমন মনের মানুষকে কালো বলেছেন যারা দ্বৈত ব্যক্তিত্ব নিয়ে বেঁচে থাকেন।

দ্বৈত ব্যক্তিত্ব বলতে বোঝায় এমন লোকেরা যারা মুখে এক রকম আর পেছনে অন্য রকম। এই ধরনের লোকদের থেকে সর্বদা দূরে থাকা উচিত। এই ধরনের লোকেরা কারোর অগ্রগতিতে কখনোই খুশি হয় না এবং যখন কেউ তাদের থেকে এগিয়ে যায় তারা তাদের সহ্য করতে পারে না এবং তারা তাদের নামানোর চেষ্টা করে।

তারা তাদের জীবনে কোনদিনও সফল হয় না তারা জীবনে বিশেষ কিছু অর্জন করতে সক্ষম হয় না। আচার্য চানক্য বলেছেন যে, কাল সাপ কেবল তাকেই আক্রমণ করে বা কাউকে হয়রানি করে । কিন্তু কালো মন যুক্ত মানুষেরা কালসাপের থেকেও এক ধাপ এগিয়ে কারন এরা কোন কারন ছাড়াই আপনার জীবন নষ্ট করতে উদ্যত হয়।

এই লোকেরা কারো জীবন নষ্ট করতে যেকোনো পরিনামে যেতে পারে এবং এতে ক্ষতি তাদের নিজেরই হয়। যারা খুব মিষ্টি মিষ্টি এবং মসৃণ কথা বলেন সে সব মানুষদের থেকে দূরে থাকা উচিত। চাণক্য বলেছেন যে, কিছু লোক মুখে মিষ্টি কথা বলে পিছনে পিছনে তারা অন্য কিছু। এই ব্যাক্তিরা দুজন মানুষ যাদের মধ্যে ভালো সম্পর্ক আছে তাদের মাঝে ঝগড়া লাগানোর জন্য উদ্যত হয়। এরা একে অপরের প্রতি তাদের মনকে বিষিয়ে তুলতে পারে।।

About Web Desk

Check Also

টানা এক বছর আপনার বাড়িঘর মশামুক্ত রাখতে খরচ করুন মাত্র ৫ টাকা, এটি দারুণ কার্যকরী টিপস জেনে নিন!

অনেক সময়ই বাড়িতে মশার উপদ্রব বেড়ে যায়। বিশেষ করে বর্ষার সময় জমা জলে মশা বেশি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *