Breaking News

6 বছর ধরে এই রহস্যময় গুহাতে থাকে এই শিশুটি…… কেন জানেন?

আন্দ্রেস ক্যান্টো যখন 14 বছর বয়সী ছিলেন তখন তার বাবা-মার সাথে তার ঝগড়া হয়েছিল। আসলে তার বাবা মা তাকে ট্রাকসুট পরে সামনের গ্রামে যেতে বলেছিলেন কিন্তু আন্দ্রেস স্পষ্ট ভাবে তা প্রত্যাখ্যান করেছিল। এর ফলে তার বাবা-মা খুব রেগে যায় এবং তার সাথে ঝগড়া শুরু হয়।

এর ফলে আন্দ্রেস খুব রেগে যায় এবং তিনি তার দাদার কুড়াল নিয়ে বাগানে এসে বাগান খুরতে শুরু করে। আজ থেকে ছয় বছর আগে সে রাগের মাথায় যা করেছিল আজ তার জন্য তা একটি অর্জনে পরিণত হয়েছে। সে মাটির নিচে নিজের তৈরি একটি গুহা বানিয়েছে যেখানে সিঁড়ি বেয়ে নেমে শোবার ঘর রয়েছে।

তাকে জিজ্ঞেস করায় সে বলে যে বাবা-মার সাথে ঝগড়ার কারণে তিনি কখনও ভাবেননি যে নিজের জন্য এত বড় গুহা তৈরি করবেন। তবে এই কাজে সে একা ছিলেন না ছিলেন তার বন্ধু এন্ডু। এন্ডু একটি ড্রিল মেশিন নিয়ে এসেছিল। তারপরে তারা একসাথে তাদের বাগানে প্রায় দশ ফুট গর্ত খুঁড়ে ছিল।

তারা এক সপ্তাহ ধরে প্রতিদিন প্রায় 14 ঘণ্টা এই কাজ করতো। এর পরে তারা দুজন মিলে এই গুহায় আরো কিছু পরিবর্তন আনার চেষ্টা করে এবং তাদের চেষ্টা সফল হয়। তারা এই গুহায় একটি বাড়ি তৈরি করার জন্য খুব কঠোর পরিশ্রম করেছিল যার ফল তারা পেয়েছিল। তারা বলেছেন যে গুহার ভেতরে একটি খুব সুন্দর শয়ন কক্ষ তৈরি করেছেন এবং এই গুহার শয়ন কক্ষ এবং বসার ঘর তৈরি করতে প্রায় 43 পাউন্ড খরচ হয়েছে।।

About Web Desk

Check Also

বিস্ময়কর ঘটনা: ৪ হাত-পা ওয়ালা শিশু জন্ম নিতেই গ্রামে ঘটে গেলো এই ঘটনা!

প্রকৃতির এক অনন্য রূপ দেখা গেলো সোমবার বিহারের কাটিহার সদর হাসপাতালে। যেখানে চার হাত-পা বিশিষ্ট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.