Breaking News

বিয়ের পরও নিজের ইচ্ছাশক্তি ও স্বপ্নকে বাঁচিয়ে, স্বামী ও শাশুড়ির সাপোর্টে PSC এক্সাম দিয়ে বড় অফিসার হলেন এই মহিলা

কঠোর পরিশ্রম এবং উৎসর্গ দিয়ে যে কোন স্তরের সাফল্য অর্জন করা যায়। আজ আমরা তেমনি একজন মেয়ের কথা আপনাকে বলতে চলেছি যিনি বিয়ের পরেও নিজের কঠোর পরিশ্রম এবং নিষ্ঠার সাহায্যে পিসিএস পরীক্ষায় সাফল্য পেয়েছেন। তার নাম লতা। বিয়ের পরে বেশিরভাগ মেয়েরাই পড়াশোনায় উৎসাহ হারিয়ে ফেলে। লতার গল্প তাদের জন্য একটি অনুপ্রেরণা।

লতা যখন পিসিএস এর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তখন তিনি বিবাহিত ছিলেন কিন্তু পড়াশোনার প্রতি তার আগ্রহ একফোঁটাও কমেনি। ফলস্বরূপ তিনি পিসিএস পরীক্ষায় পাশ করে স্কুলের ডি আই ও এস জেলা পরিদর্শক হয়েছিলেন। আসুন জেনে নেওয়া যাক তার সাফল্যের এই গল্পটি। ইউপির মিরাটের বাসিন্দা লতা এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। প্রাথমিক পড়াশোনা তিনি সেখান থেকেই করেছিলেন।

পড়াশোনায় অনড় থাকার কারণে দ্বাদশ শ্রেণীর পরে তিনি ইউপিপিএসসি এসসিডুকেশন পোস্ট অফিসের কেরানি পদে নির্বাচিত হন। তিনি ইগনু থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করেছেন। 2015 সালে তিনি পিসিএস পরীক্ষার বিষয়ে জানতে পারেন এবং এই পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি শুরু করেন। 2015 সালে তিনি প্রথমবারের মতো নেই পরীক্ষা দিয়েছিলেন। তবে কোনো কারণে তিনি বাছাই হতে পারেননি।

তবে এই সময় তিনি কেরানীর চাকরী ছেড়ে দেননি। 2016 সালে তিনি এই পরীক্ষার জন্য আবার চেষ্টা করেন তবে এবারও তিনি সাফল্য পেতে পারেননি। পরিবারের আর্থিক অবস্থা খুব ভালো না হওয়ার কারণে তারা 2018 সালে লতার বিয়ে দিয়ে দেন। বিয়ের পরেও লতা চেষ্টা ছাড়েননি। তার স্বামীও তাকে সমর্থন করেছিলেন। 2019 সালে তিনি এই পরীক্ষায় সাফল্য পেলেন এবং ডেপুটি জেলার এর পদ পেয়েছেন।

তবে পরীক্ষার রেজাল্ট দেরিতে বের হওয়ার কারণে তিনি 2020 সালে আবার পরীক্ষা দেন এবং এই পরীক্ষায় তিনি ডিআইওএস অর্থাৎ বিদ্যালয়ের জেলা পরিদর্শকের পদ পেয়েছিলেন। এই পরীক্ষায় সফলতার জন্য তিনি তার মা এবং তার স্বামীকে সম্পূর্ণ কৃতিত্ব দিয়েছেন। তবে লতা তার ধৈর্য এবং আত্মবিশ্বাস নিয়ে এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ডিআইএসএ পরিণত হয়েছেন। এর পাশাপাশি তার সাফল্যের পরে লতা সেই সমস্ত মহিলাদের জন্য অনুপ্রেরণায় পরিণত হয়েছেন যারা বিয়ের পরে পরিস্থিতির সামনে নিজের স্বপ্নকে ত্যাগ করে দেন।।

About Web Desk

Check Also

দিব্যা ভারতীর জীবনে ছিল অনেক গোপন কাহিনী, জেনেনিন কি হয়েছিল 5 এপ্রিল 1993 এর রাতে

অভিনেত্রী দিব্যা ভারতীর নাম শুনলেই এক মিষ্টি মুখের মেয়ের কথা মনে পড়ে। খুব অল্প বয়সেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *