Breaking News

কেরালায় এই IAS অফিসার মানুষের মন জয় করেছে, এনার বদলি বন্ধের জন্য রাস্তায় নেমেছে জনসাধারণ

জেলা কালেক্টরকে তার পরিষেবাগুলি যে জায়গায় দিতে হয় তার সরকার ঠিক করে দেয় তাই তাদের বদলি হতে থাকে। তবে আইএএস অফিসার পি বি নোহ কেরালার বসবাসকারী মানুষদের জন্য শুধুমাত্র জেলা কালেক্টর ছিলেন না, তিনি সেই জায়গার মানুষদের প্রতি যথেষ্ঠ সহানুভূতিশীল ব্যক্তি ছিলেন এবং তাদের সমস্ত সমস্যার সমাধান করতেন। জনগণের সেবার জন্য পি বি নোহ যে কাজ করেছিলেন তা জেলা কালেক্টরের দায়িত্বের চেয়েও বেশী ছিল।

সেই কারণেই তিনি মানুষের মনে তার জায়গা তৈরি করে নিয়েছিলেন এবং তার বদলি হওয়ার সময় সেখানকার লোকেরা অত্যন্ত কষ্ট পেয়েছিলেন। তিনি কেরালার পাঠানমতি জেলার কালেক্টর ছিলেন। পি বি নোহ তার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজের মাধ্যমে জেলার জনগণের সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এর্নাকুলাম জেলার মুভাত্তুপুজার আদিবাসী পি বি নোহ 2018 সালের জুন মাসে পাঠানমতি জেলার কালেক্টর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন।

তার কিছু মাস পরেই কেরালায় ভয়াবহ বন্যা দেখা দেয় এবং লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষ সেখানকার বন্যার জলে আটকে যায়। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ এবং স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবীদের সহায়তায় তারা দুর্যোগে আটকা পড়া লোকদের খাবার এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ করেছিল পি বি নোহ এবং তার বাহিনী। তিনি সেখানকার মানুষদের জন্য অনেক কিছুই করেছিলেন।

যদিও 2020 সালে কেরালায় কোন বন্যা হয়নি নি তবে এবার করোনার বড় চ্যালেঞ্জ তার সামনে এসেছিল। আসলে এখানে একটি পরিবার ছিল যারা ইটালি থেকে ফিরে এসেছিল এবং তারা তাদের এই ঘটনা লুকিয়ে রাখার কারণে সেই এলাকায় করোনা খুব ভয়াবহ ভাবে ছড়িয়ে পড়েছিল। পি বি নোহ তার ভাইবোনদের মধ্যে সপ্তম সন্তান ছিলেন এবং তার বাবা-মা একটি ছোট মুদি দোকান চালাতেন।

আর্থিক অবস্থার কারণে তিনি এবং তাঁর ভাইবোনেরা সরকারি স্কুলে পড়াশোনা শেষ করেন এবং তারপরে 2012 সালে তিনি সিভিল সার্ভিস নিয়ে পড়াশোনা করেন। জেলা কালেক্টর হিসেবে তিনি জনগণের সমস্ত সমস্যা সমাধান করতেন এবং আন্তরিক ভাবে তাদের সেবা করার কাজে নিযুক্ত ছিলেন। লোকেরা তার স্থানান্তরিত হওয়ার খবর পেয়ে খুবই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ে।।

About Web Desk

Check Also

“পুষ্পা” ফিল্মের রক্ত চন্দন এর দাম জানেন কত? বিলুপ্ত এই চন্দন কীভাবে এল ফিল্মের সেটে? জানলে আপনিও চমকে যাবেন

সম্প্রতি রিলিজ হয়েছে আল্লু আর্জুনের ফিল্ম “পুষ্পা”। এই ফিল্ম রক্ত চন্দনের কাঠ নিয়ে তৈরি। আজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.