Breaking News

“আপনি কি কোথাকার কালেক্টর”? বৃদ্ধের কথায় মন ছুঁয়ে যায়, ডাক্তারি ছেড়ে IAS অফিসার হলেন প্রিয়াঙ্কা

প্রতিটি ব্যক্তির জীবনেই প্রতিদিন কিছু না কিছু ঘটেই থাকে। তবে কিছু ঘটনা এমনও ঘটে যা, আমাদের জীবনের অর্থকেই পরিবর্তন করে দেয়। ছত্তিশগড়ের IAS অফিসার প্রিয়াঙ্কা শুক্লার সাথেও এমন কিছু ঘটনা ঘটেছিল। তিনি IAS হওয়ার আগে একজন এমবিবিএস পাস করা ডাক্তার ছিলেন। তিনি যখন চিকিৎসক হিসেবে কাজ করতেন তখন তার জীবনে একটি বিশেষ ঘটনা ঘটেছিল।

যার কারণে তিনি IAS অফিসার হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তিনি 2006 সালে লখনউয়ের নামিদামি কলেজ ‘KGMU’ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রী অর্জন করেছিলেন। এই ডিগ্রী অর্জনের পর, প্রিয়াঙ্কা লখনউতেই ডাক্তারি করা শুরু করেছিলেন। এই লখনউতে থাকাকালীন তিনি একবার বস্তিতে বসবাসকারী লোকেদের চেকআপ করতে যান। সেখানে গিয়ে তিনি দেখেন যে, একজন মহিলা নিজেও নোংরা জল খাচ্ছেন এবং তার বাচ্চাদেরও নোংরা জল খাওয়াচ্ছেন।

তখন প্রিয়াঙ্কা সেই মহিলাকে জিজ্ঞাসা করলেন যে, আপনি কেন এই নোংরা জল পান করছেন? তখন সেই মহিলাটি তার কথার কোন উত্তর না দিয়ে প্রিয়াংকাকে জিজ্ঞাসা করলেন যে, ‘আপনি কি একজন কালেক্টর?’ মহিলাটির এই কথাটি প্রিয়াঙ্কার হৃদয়ে গেঁথে গিয়েছিল এবং তিনি মনে মনে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে, যাই হয়ে যাক না কেন তাকে IAS হতেই হবে। তারপরে তিনি আর দেরি না করেই ইউপিএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে শুরু করে দিয়েছিলেন।

প্রথমবার তিনি পরীক্ষা দিয়ে সফল হতে পারেননি, তবে 2009 সালে দ্বিতীয়বার পরীক্ষা দেওয়ার সময় তিনি সাফল্য পেয়েছিলেন। বর্তমানে তিনি ফিল্ডে কাজের পাশাপাশি টুইটারে করোনা মহামারী সম্পর্কে সচেতনতা কথা বলছেন। যার জন্য প্রত্যেকেই তার প্রশংসা করছে। প্রিয়াঙ্কা শুক্লা কেবল একজন কঠোর পরিশ্রমীই নন, তার আরো অন্যান্য প্রতিভাও রয়েছে। তিনি কবিতা লিখতে পছন্দ করেন, তিনি সমসাময়িক নৃত্যে পারদর্শী।

এছাড়া তিনি একজন ভালো গায়িক ও চিত্রশিল্পীও। প্রিয়াঙ্কা এই প্রতিভার দ্বারা সোশ্যাল মিডিয়ায় তার ফ্যানেদের অবাক করে দিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রিয়াঙ্কা এখন খুব জনপ্রিয় এবং তার অনেক ফ্যানও রয়েছে। তার ফলোয়ার ক্রমাগত বেড়েই চলেছে। টুইটারে তার ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় 70 হাজার। শুধু তাই নয়, বলিউডের অনেক নামী অভিনেতারাও তাকে অনুসরণ করে।

তিনি 2011 সালে আদমশুমারিতে ভালো কাজ করার জন্য রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় এর কাছ থেকে ‘সেন্সাস সিলভার মেডেল’ পেয়েছিলেন। তিনি শিক্ষার ক্ষেত্রে তাঁর অসামান্য কাজের জন্যও রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে পুরস্কার পেয়েছিলেন। এছাড়াও আইএএস অফিসার প্রিয়াঙ্কা শুক্লা আরো অনেক ধরনের পুরস্কার ও স্বীকৃতি পেয়েছেন। কঠোর পরিশ্রমী প্রিয়াংকা তার কাজের মাধ্যমে দেশ এবং সমাজের গর্ব হয়ে উঠেছেন।।

About Web Desk

Check Also

সৌন্দর্যের দিক থেকে দীপিকা পাডুকোনকে হার মানাবে রণবীর সিং এর বোন।

বিখ্যাত অভিনেতা রণবীর সিং তার ভিন্ন স্টাইল এবং উজ্জ্বল অভিনয়ের জন্য পরিচিত এবং তিনি প্রায়ই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *